মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:১২ পূর্বাহ্ন

ইসরায়েলকে যে চোখে দেখেন ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট

ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি।

ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয় পেয়েছেন ৬০ বছর বয়সী রক্ষণশীল শিয়া নেতা সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি। তিনি পেয়েছেন ১৭.৮ মিলিয়ন ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী মোহসেন রেজায়ি পেয়েছেন ৩.৩ মিলিয়ন ভোট। ইরানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্বাচন হেডকোয়ার্টার থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

এদিকে, আন্তর্জাতিক মহলে আলোচনার তুঙ্গে রয়েছে ইরানের এই নির্বাচন। বিশ্বনেতারা ইরানের নতুন প্রেসিডেন্টকে নানা হিসাব-কিতাব মেলাতে শুরু করেছেন। এরই মধ্যে পারমাণবিক প্রকল্প থেকে সরে আসা, বিনিময়ে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া নিয়ে বিশ্ব শক্তির সঙ্গে ইরানের দর-কষাকষি চলছে। যুক্তরাষ্ট্রের মতো ইসরায়েলেও জোর চর্চা হচ্ছে সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসিকে নিয়ে।

এখন প্রশ্ন উঠেছে ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর নতুন প্রেসিডেন্ট কিভাবে দেখবে ইসরায়েল। মিডল ইস্ট আইয়ের এক বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, ইরানের ইব্রাহিম রাইসির প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার মাধ্যমে তেহরান এবং ইসরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনা নেই।

সেসময় ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট ইসরায়েলকে কি চোখে দেখেন তার কয়েকটি উদাহরণ দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয়, ২০২১ সালের মে মাসে এক বক্তব্যে গাজায় ইসরায়েলি বোমা বর্ষণের সময় ইরানের নব-নির্বাচিত প্রেসিডন্ট ইব্রাহিম রাইসি ইহুদিদের বিরুদ্ধে লড়ায়ের জন্য হামাসের প্রশংসা করেছিলেন।

সে সময় তিনি ইসরায়েলের দখলদারিত্ব থেকে জেরুজালেমের স্বাধীনতা চেয়ে বলেছিলেন, ফিলিস্তিনিদের বীরোচিত প্রতিরোধ আবারও দখলদার ইহুদিদের পিছু হটতে বাধ্য করেছে। এটাকে তিনি পবিত্র জেরুজালেম স্বাধীন হওয়ার আরেকটি ধাপ বলে উল্লেখ করেছিলেন।

এছাড়া গাজায় ফিলিস্তিনিদের যুবকদের প্রতিরোধ মুসলিম এবং আরব উম্মাহর জন্য ব্যাপক জয় বয়ে এনেছে। এটা মুসলিম এবং বিশ্বে স্বাধীনতাকামীদের জন্য সম্মান বয়ে এনেছে। এতে স্পষ্ট যে ইরানের নতুন প্রেসিডেন্টের ইসরাইলের ব্যাপারে সর্বদা আপসহীন থাকবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2020 bdnewseye.com
Developed BY M HOST BD