শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন

এত ঘর দেয়ার ইতিহাস বিশ্বে আর নাই: ডিসি

বন্দর উপজেলা অডিটোরিয়ামে দ্বিতীয় পর্যায়ে গৃহহীনদের মাঝে ঘরের চাবি ও জমির কাগজ হস্তান্তর।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. মোস্তাইন বিল্লাহ বলেছেন, ‘যারা ঘর পাচ্ছেন, এই ঘরটি পুরোপুরি আপনার। দুই শতাংশ জায়গাসহ আপনাদের বুঝিয়ে দেয়া হচ্ছে। এই ঘরের ইট, কাঠ, মাটি সব আপনার। আপনি এখানে গাছ লাগাতে পারবেন, পশু পালন করতে পারবেন, এখানে ব্যবসা করতে পারবেন। এই জায়গাটি দেখে রাখার দায়িত্ব আপনার। আমাদের কিন্তু ভূমিদস্যুও আছে। যারা বিভিন্ন লোভ-লালসা দেখায়। বন্দরের জমির অনেক দাম এইসব কথা বলে তাদের খপ্পরে ফেলবে। এমনটা যাতে না হয় সেজন্য ইউএনও, ওসিকে নজরদারি রাখার অনুরোধ করবো। একই সাথে নিজেদেরও সজাগ থাকতে হবে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে এরকম ভূমিহীনদের মাঝে আমরা আরও ঘর দিতে চাই।’
গতকাল রোববার (২০ জুন) সকালে বন্দর উপজেলা অডিটোরিয়ামে দ্বিতীয় পর্যায়ে গৃহহীনদের মাঝে ঘরের চাবি ও জমির কাগজ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। পুরো জেলায় ১৮২টি ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। এর আগে প্রথম পর্যায়ে ৩৪৬টি পরিবারের মাঝে নতুন ঘর হস্তান্তর করা হয়।
ডিসি বলেন, ‘জানুয়ারিতে এবং আজকে ঘরগুলো দেয়া হচ্ছে। আমি যতটুকু জানি সারা বিশ্বে একসাথে এত ঘর দেয়ার ইতিহাস নেই। সবসময় আমরা বলি, বন্দর উপজেলা একটি মডেল জেলায় রূপান্তরিত হবে। সরকারের উন্নয়নমূলক কাজের পাশাপাশি এনজিওসহ বিভিন্ন সংস্থাকে নিয়ে কাজ করছি। আমরা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি সংরক্ষণ করার উদ্যোগ হাতে নিয়েছি।’
তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের সরকারি কর্মকর্তাদের মধ্যেও অনেক জায়গায় এখন অনেক নাক সিটকানো লোক রয়েছে, আমাদের সাধারণ মানুষেরও মধ্যে এমন রয়েছে। কিন্তু আমরা মনে করি মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও আমাদের জাতীয় পতাকার স্থানটিতে দলমত নির্বিশেষে এক হওয়া উচিত। সোনার বাংলা নির্মাণ করতে চাইলে দলমতের উর্ধ্বে উঠে নিজ থেকে কাজ করতে হবে। যেটি প্রধানমন্ত্রী করছেন এবং তা করার জন্যে আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন। তার এই কাজকে এগিয়ে নেয়ার জন্যে সরকারি কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিরাসহ সবাই মিলে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাবো।’
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সেলিম রেজা, বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ রশিদ, বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শুক্লা সরকার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসমা সুলতানা নাসরিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সানাউল্লাহ সানু, ছালিমা হোসেন শান্তা, বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এহসানউদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2020 bdnewseye.com
Developed BY M HOST BD