শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন

ওয়াজ করা আলেমদের হোটেলে পাওয়া যায়: সেলিম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান বলেছেন, ‘এমন অবস্থা হয়ে গেছে, যারা নাকি ওয়াজ করে, যারা নাকি আলেম তাদেরকে হোটেলে খুঁজে পাওয়া যায়। কালকেও আপনারা পত্রিকায় দেখবেন কোনো একজনের ভাগিনা কোনো একটা অঘটন ঘটিয়েছে। এত অপরাধের সাথে জড়িত হলে আল্লাহ আমাদের উপর রহম করবেন কীভাবে?’

বুধবার (১৬ জুন) বিকেলে মুক্তিযোদ্ধাদের আয়োজনে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার মোহাম্মদ আলীর রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত বেঁচে থাকবেন নারায়ণগঞ্জের উন্নয়ন কর্মকান্ডে থাকতে হবে। আপনাদের কর্মকান্ডের কারণে কিন্তু আপনারা যোদ্ধা। নির্দেশনা ছিল বঙ্গবন্ধুর কিন্তু এ পতাকা আপনাদের মাধ্যমে সৃষ্টি। আজকে মানুষের মধ্যে হিংসা জন্মে গেছে। রাস্তা ও ব্রিজের নামকরণ নিয়েও প্রশ্ন তোলে। এগুলো নিয়ে তো আবার নিউজও হয়। আমরা ইচ্ছা করলে মামলা-মোকাদ্দমায়ও যেতে পারতাম। আমি আমার পরিবার থেকে মামলা মোকাদ্দমায় যেতে পারি। কিন্তু আমি তো শয়তান মেরে ফেলতে পারবো না।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের নারায়ণগঞ্জটাকে ভালো রাখতে হবে। একটি বড় হাসপাতাল পেতে যাচ্ছি অথচ এই জায়গাটার মধ্যেও কেউ কেউ বাধার সৃষ্টি করছেন। আরেকটা ব্যবসা শুরু হয়েছে নির্বাচনী ব্যবসা। আমরা নির্বাচন নিয়ে এখন কোনো চিন্তাই করছি না। করোনা ভাইরাসের মধ্যে কোনো নির্বাচনের কথা চিন্তা করা যেতে পারে না। তার উপরে শুরু করছে নির্বাচনী ব্যবসা। আমি তোমারে নমিনেশন পাঠাইয়া দিমু, তুমি নির্বাচন পর্যন্ত থাকবা কিনা সে চিন্তা করো। এর উপর সরকার আইন করছে ডিগ্রি না থাকলে নির্বাচন করতে পারবে না। অথচ যে জীবনে স্কুলে যায় নাই সে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে দিছে।’

সেলিম ওসমান বলেন, ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলীর রোগমুক্তি কামনা করে সেলিম ওসমান বলেন, ‘ওনার অবস্থা দেখে আমি কথা বলতে পারছিলাম না। মনে প্রাণে আল্লাহকে ডেকেছি। আসার সময় খবর নিয়ে আসলাম। ডাক্তার বলেছে, ওষুধের মাধ্যমে উনি ভালো হয়ে যাবে। আগামী সাতদিন ওনাকে ফুল রেস্টে থাকতে হবে। তারপরেও আমরা সবাই মিলে বসে দোয়া করতে পারি।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, সহসভাপতি মিজানুর রহমান বাচ্চু, নারায়ণঞ্জ চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার নুরুল হুদা, সদর উপজেলা সংসদ কমান্ডের কমান্ডার শাহজাহান ভূইয়া জুলহাস প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2020 bdnewseye.com
Developed BY M HOST BD