শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন

গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু ॥ স্বামী আটক

গৃহবধূ জোসনা

নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ চতলামাঠ এলাকায় জোসনা নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। জোসনার পরিবারের দাবি, পরকিয়া সম্পর্কের জের ধরে তার স্বামী শ্বাসরোধে হত্যা করে স্বাভাবিক মৃত্যু বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে। শনিবার ১৯ জুন সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে স্বামীর বাড়ী থেকে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধ্বার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী ইলিয়াসকে আটক করা হয়েছে।
নিহত জোসনা (৩৮) ফতুল্লা মডেল থানার বক্তাবলীর মৃত হাবিবুর রহমান হাবিবের মেয়ে।
জোসনার ভাই আব্দুল মতিন জানান, ২৪/২৫ বছর পূর্বে ইলিয়াস দর্জির সাথে তার বোনের বিয়ে হয়ে। তাদের সংসারে বন্যা (২৩)ও হাফসা (৭) নামের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তার বোনের বাসায় স্বামীকে নিয়ে রানি নামের এক মহিলা ভাড়া থাকতো। সেই মহিলার সাথে তার বোন জামাই ইলিয়াস পরকীয়ায় জড়িয়ে পরে। বিষয়টি জানাজানি হলে রানিকে ঐ বাসা থেকে বের করে দেয়া হয়। রানি অন্যত্র ভাড়ায় চলে গেলেও তার বোন জামাই ইলিয়াসের সাথে পরকীয়ার সম্পর্কটা থেকেই যায়। এ নিয়ে প্রায় সময় তার বোনের সাথে ঝগড়া হতো স্বামী ইলিয়াসের। প্রায় সময় তার বোন জোসনাকে শারীরিক নির্যাতন করতো ইলিয়াস।এ নিয়ে পারিবারিক ও স্থানীয় ভাবে একাধিক বার শালিস বৈঠক ও হয়েছিলো। কিম্ত তারপরেও পরকীয়া সম্পর্ক বজায় রেখেছিলো সে। তাই তাদের ধারনা পরিকল্পিত ভাবে তার বোনকে শুক্রবার রাতে হত্যা করেছে তার বোনের স্বামী ইলিয়াস।
তিনি আরো বলেন, তার বোনের মৃত্যুর সংবাদটি বোনের স্বামীর পরিবার থেকে কেউ তাদেরকে জানায়নি। পাশের বাড়ীর লোকজন মোবাইল ফোন করে তাদেরকে তার বোনের মৃত্যুর সংবাদটি জানায়।
ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক শাহাদাত জানায়, গৃহবধূ জোসনার মৃতদেহ উদ্ধ্বার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী ইলিয়াসকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2020 bdnewseye.com
Developed BY M HOST BD