সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৪:৪৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বিশৃঙ্খলা প্রতিরোধে সাংবাদিকদের সহযোগীতা চান সদর থানার নতুন ওসি শিক্ষিকাকে ইভটিজিং, শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ডিসির কাছে স্মারকলিপি না.গঞ্জের সেই তিন শিশু পে‌লো প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে স্ব‌র্ণের চেইনসহ উপহার নড়াইলে এস.এম সুলতান চারুকলা কলেজে ভবন উদ্বোধন করলেন মাশরাফি এমপি নদীর পানির স্তর বৃদ্ধি পেয়েছে ৭৬টি পয়েন্টে, কমেছে ২৯টিতে ৬০ বছর বয়সের পর লোকজন পেনশন পাবে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব বুধবার সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রধানমন্ত্রী আক্তার-মশু স্মৃতি সংঘের উদ্যোগে বোমা হামলায় শহীদদের স্মরণে মিলাদ মাহফিল নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগ অফিসে বোমা হামলার ২১ বছর ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু, হাসপাতালকে ২ লাখ টাকা জরিমানা

কবি সাজিয়া সুলতানা মিম -এর ‍তিনটি কবিতা

কবি সাজিয়া সুলতানা মিম

অনূভুতি

তোমার চোখের মারবেলে আমি হারিয়ে যেতে চাই।
কতগুলো অপূর্ণ প্রার্থনার শিরোনামে তুমি,
জীবনটাকে তুমিতে মিশিয়ে রং’রা এখন ভালোই চাঙ্গা..
চুমুতে শরীরের কুঁচকানো চামড়া ক্ষণিকেই টান হয়ে নিজের রূপ বদলায়!
আঙ্গুলেরা খেলা করে নিস্তব্ধতার ভেজা শব্দে,
তোমাতে অলস চাঁদ ক্লান্তির গল্প তৈরি করে নিদারুণ ভাবে..
ভাঙ্গা জানালার ছিদ্রে মাকড়সা খোঁজ নেয় হারিয়ে যাওয়া সময়ের!
তুমি মানে অনূভুতির কার্নিশ জুড়ে ভারী প্রশ্বাস,
তুমি মানে মিষ্টি নিকোটিনের মাতাল ঘ্রাণ,
তোমাকে হারিয়ে প্যাঁচার তিক্ত ভাবনার শিকার হতে চাইনা।
তোমার ঠোঁটে আমার ছেঁড়া স্বপ্নের মিছিল বড্ড দারুণ!
আমাতে তোমার নেশা তীব্র,
তোমাতে আমি কড়া লিকার।

তুমি তুমি ঘ্রাণ

আমার শরীর তুমি তুমি গন্ধ করে।
যতোই দূরে যায় তুমি ঘ্রাণ টা কেমন যেন মাতাল করে রাখে আমায়!
এই তুমি’কে আমি সেই কবেই ছুড়ে ফেলেছিলাম,
ঐ তো ময়লা ভ্যানে।
তাহলে আবারো কেন সে তুমি!
শরীর টা কে এবার তাহলে কেটে ফেলি
টাটকা রক্তে তুমি যন্ত্রণা তৈরি করছো,
কি হয় বলতো স্মৃতির ক্ষত জমিয়ে
ভালোবাসার মিছিলে তে পিছিয়েই ছিলাম,
টেনে হিঁচড়ে শিরোনামে আনলে
বিশ্বাসের রঙ্গে ভিজিয়ে দিলে আমায়,
মনের আয়নায় কেমন এক নব রূপ
কল্পনাতেও আসেনা।
জানো বিবেক সেইদিন ও ঘাড়ে হাত দিয়ে বলেছিল কয়’টা কথা,
শুনিনি,একদম না।
এক চড় বসিয়ে দিয়েছিলাম,
ও সেদিন কেঁদেছিল আমি আমি করে
আমি হেসেছিলাম তুমি তুমি করে!
তুমি গন্ধ টা শরীরে নামতার মতো দাগ টানছে,
জানো আর পারছিনা,একটুও না।
ভালো থেকো কেমন,
সেও ভালো থাকুক যে তোমার জন্য নতুন করে পাগল হবে।
শুভকামনা তোমাদের!

আমার আমি

গোলাপ কখনও বৃদ্ধ হয়না ঠিক যেন আমার মনের মতো!
বয়স’কে প্রাধান্য দেওয়া এই দেহের উপর ছেড়ে দিয়েছি,
চামড়া কুঁচকানো প্রকৃতির নিয়ম।
আমি কেমন জানি অনিয়মে চলতে পছন্দ করি..

জানি না বুকের বা পাশ টা কিভাবে খচখচ করে উঠে!
ভাবনাগুলো কে হত্যা করার মানুষের অভাব নেই,
অভিজ্ঞতা দিয়ে কতদূর পৌঁছানো সম্ভব!!
যখন টাকা’র কৃতদাস বাস্তবতা হয়ে যায়..
মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা করে দিন গুণা বোকামির বৈশিষ্ট্য,
নিজে কেমন বুঝতে হলে আয়নার প্রয়োজন নিছক চিন্তা।

আমি শুধু কপাটের ওপারের সুখী মানুষদের চিন্তাই নিজেকে নিহত করে চলেছি..
আমি পারি,আমি পারতে পারি,আমি পারবো এইগুলো কি ভাবি কখনও!!
মনের সাহস টা’কে কবেই অজান্তে কাফন পরিয়েছি,
সময় টা ছুটে চলার!
কঠিন শব্দ টা ছুঁড়ে ফেলতে চাই দূরের নর্দমায়..
এই তো কিছু সময় আর।

নিউজটি শেয়ার করুন...

আপনার মন্তব্য প্রদান করুন...


© All rights reserved © 2020 bdnewseye.com
Developed BY M HOST BD